Search

অকালে চুল পাকা রোধ করুন সহজ উপায়ে- ছেলে ও মেয়েদের জন্য

অকালে চুল পাকা রোধ

অকালে চুল পাকা রোধ করবেন যেভাবে :

আপনার বয়স যদি বেশি হয় তাহলে চুল পাকতেই পারে। কিন্তু বয়স না হতেই চুল পাকা বর্তমানে একটি কমন সমস্যায় রুপ নিয়েছে। এর হাত থেকে রক্ষা পেতে আপনাকে অবশ্যই এখনই সচেতন হবে। নতুবা আপনারও অকালে চুল ঝরে যেতে পারে। আপনার এখনই উপযুক্ত সময় আপনার চুল বিষয়ে সচেতন হওয়ার এবং প্রয়োজনীয় ছোট খাট পদ্ধতি অনুসরন করা। আজ আমরা এরকম কিছু পদক্ষেপ নিয়ে হাজির হয়েছি। মাত্র কয়েকটি হাতে গোনা পদক্ষেপ, অনুসরন করুন। আয়ুর্বেদিক উপায়।

 

আপনার চুল পাকার পেছনে যে কারন থাকতে পারে তা হল হরমোনের প্রভাব, ভেজাল খাবার, খারাপ তেল, দুষিত পরিবেশ, এলকোহল ও নেশা জাতিয় কিছু পান করা করাসহ অনিয়মিত জীবন যাপনও একটি কারন হতে পারে। তাই নিম্নে উল্লেখিত পদক্ষেপ অনুসরণ করার আগে এগুলো বাদ দেয়ার চেষ্টা করতে হবে। এবার আসুন দেখি কি সেই পদক্ষেপগুলো……

 

১ নং : ১ চা চামচ হরতকীর গুড়া, ২ চা চামচ পরিমান মেহেদী পাতার গুড়া, অর্ধ কাপ পরিমান নারকেল তেল। সম্পুর্ন উপকরণগুলো একসাথে করুন এবং নাড়তে থাকুন। সম্পূর্ন মিশে গেলে এটি এবার ফুটিয়ে নিন। ঠান্ডা হওয়ার পর পুরো মিশ্রনটুকো আপনার চুলে মেখে নিন। ২ ঘন্টা অপেক্ষা করুন তারপর ভালভাবে ধুয়ে ফেলুন। শ্যাম্পু ব্যাবহার করুন।

 

২ নং: ১০ গ্রাম কেশুতপাতা নিন, হরতকীর ছাল, ১০/১২ গ্রাম মেহেদী পাতা, ৬-৮টি জবুফলের মাঝের অংশ নিন, ২/৩ টি আমলকি ও প্রয়োজনমত বিটের রস দিয়ে ফুটিয়ে নিন। এবার তৈরিকৃত হেয়ার টনিকটি প্রতিদিন লাগান গোসলের আগে। ৪০ মিনিট পড়ে শ্যাম্পু দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এটি খুবই কার্যকর পদ্ধতি। এটি করেই অনেকের চুল বছরের পর বছর ভাল থাকতে পারে।

অকালে চুল পাকা রোধ

৩ নং: বাদামের তেল, আমলকীর রস ও লেবুর রস একসাথে মিশিয়ে প্রতি সপ্তাহের অন্তত ২ দিন ব্যাবহার করা উচিত। তাহলে আপনার চুল আরো স্বাস্থ্যবান আর চুল পাকার সম্ভাবনা একদমই কমে যাবে।

 

৪ নং: যদি আপনার ইতিমধ্যে চুর পাকা শুরু হয়ে থাকে এবং যা বেশি না মাত্র একটি-দুটি পর্যায়ে আছে তাহলে টকদই, ডিমের কুসুম ও মেহেদী একসাথে করে প্যাক তৈরি করে চুলে মাখুন। আপনার চুল পাকা কমে যাবে।

 

৫ নং : ২ টেবিল চামচ পরিমান আমলকী গুঁড়া, ১ টেবিল চামচ পরিমান মেথির গুড়া ও ১ কাপ পরিমান নারিকেলের তেল একসাথে করে হালকা তাপে গরম করুন। এটির রং বাদামী রং হলে নামিয়ে রাখুন। এরপর ঠান্ডা করার পর ছেকে প্রতি সপ্তাহে ২ বার চুলের গোড়া পর্যন্ত লাগান। ২ ঘন্টা পরে আপনার চুল ধুয়ে ফেলুন।

 

এছাড়াও আপনার চুল ভাল রাখতে নিয়মিত ভাল ব্রান্ডের শ্যাম্পু (যেটি আপনার চুলে স্যুট করে ) ব্যাবহার করুন। ভাল শাখ সবজি খান এবং প্রচুর পরিমান বিশুদ্ধ পানি পান করুন। আপনার চুল ভাল রাখতে বিভিন্ন জেল, কালার, চুলের ক্রিম, স্প্রে ও সিরাম ব্যাবহারে সতর্ক হতে হবে। বেশি ভাল হয় এগুলো ব্যাবহার না করলে। এভাবে চললে আপনার চুলতো পাকা কমবেই উপরোন্তু চুল হবে সুন্দর, ঝলমলে কালো ও সিল্কি।

 

লাইক দিতে ক্লিক করুন এখানে ঢাকা ম্যাগাজিন

comments




Leave a Reply

Your email address will not be published.