Search

অনিয়মিত পিরিয়ডকে নিয়মিত করার উপায়

অনিয়মিত প্রিরিয়ডকে নিয়মিত করার সহজ ও বিশুদ্ধ উপায় জেনে নিন।

অনিয়মিত পিরিয়ডকে নিয়মিত

অনিয়মিত পিরিয়ডকে নিয়মিত

 

অনিয়মিত প্রিরিয়ডকে নিয়মিত করতে ব্যবহার করতে হবে আদা, চিনি আর দুধের মত অতি সাধারন অর্থাৎ যা হাতের কাছে পাওয়া যায় তাই দিয়েই করে ফেলুন চিকিৎসা । তাও আবার ঘরে বসে। নারীদের প্রিরিয়ড অনেক সময় অনিয়মিত হতে পারে আর সেটি আপনি পারেন চিরতরে দুর করতে। অত্যান্ত সহজ উপায়ে। আর মনে রাখুন এই সমস্যাটি বেশি দিন ধরে চলতে থাকলে সন্তান ধারন ক্ষমতা হারাতে পারেন, আরো বহুবিদ শারীরিক সমস্যা সৃষ্টি হতে পারে এবং আপনার চিরস্থায়ী কোন সমস্যাও হতে পারে। তাই নিম্নে দেওয়া  দুইটির যেকোন একটি পদ্ধতি অনুসরন করেন শুধুমাত্র ১ মাস আর এই অনিয়মিত প্রিরিয়ডকে চিরতরে বিদায় জানিয়ে দিন।

 

১ নং পদ্ধতি :  আদার ব্যাবহার করে

নানান গুনে গুনান্বিত এই ব্যাবহার হয়ে থাকে সর্দি কাশি সারাতে এবং আরো নানা বিধ অসুখ সারানোর জন্য। এবার এটাকে কাজে লাগিয়ে আপনার প্রিরিয়ডের সমস্যাকে বাই জানান।

ব্যাবহার:  # এককাপ পানির মধ্যে এককাপ পরিমান মহি আদার কুচি মিশিয়ে ফেলুন। এবার এটি ফুটান ৬/৭ মিনিট।

# সামান্য মধু যোগ করুন এটির মধ্যে

# প্রতিদিন খাওয়ার পর দিনে ৩ বার হারে খেতে শুরু করুন।

# আপনার পিরিয়ড (মাসিক) একদম নিয়মিত হয়ে যাবে।

 

২ নং পদ্ধতি : দারু চিনির ব্যবহার করে :

অনিয়মিত পিরিয়ডকে নিয়মিত

অনিয়মিত পিরিয়ডকে নিয়মিত

 

অনিয়মিত প্রিরিয়ডকে নিয়মিত করার কার্যকরী উপাদান হলো এই দারুচিনি। নানান প্রকার ঔষধি গুনে ভরা এই দারু চিনি কাজে লাগিয়ে আপনিও সহজেই এই সমস্যা চিরতরে মুক্তি পেতে পারেন। কিভাবে এটি ব্যবহার করে প্রিরিয়ডের (মাসিক বা মিনসের) ব্যাথা থেকেও  নিজেকে রাখবেন সেইফ বা নিরাপদ জেন নিন ।

ব্যবহার ও উপকরন: এককাপ দুধ, হাফ চা চামচ দারুচিনি এর পরিমিত মধু একসাথে মিশিয়ে নিন। এভাবে তৈরিকৃত মিশ্রনটি খেতে হবে ৪/৫ সপ্তাহ। আপনার এই অনিয়মিত পিরিয়ডের সমস্যা আর থাকবেনা। এটি দুর হবে একদম চিরকালের জন্য।

 

প্রতিদিন দারুচিনি দেয়া চা খেলে উত্তম কাজ হয়। আর যদি পারেন চলতে ফিরতে মাঝে মাঝে আনার মুখের মধ্যে ১/২ টি দারু চিনি রাখলেন তাতেও কাজ দিবে। মনে রাখুন যে আপনি যে দারুচিনি ব্যবহার করবেন সেটি যেন খাটি ও মানসম্মত হয়।

উপরে উল্লেখিত দুটি পদ্ধতি অনুসরণ করলে আপনি এই সমস্যাকে খুব সহজে অথচ চিরদিনের জন্য বিদায় জানাতে পারবেন। ভাল থাকুন।

 

আমাদের লাইক দিতে পারেন এখানে ঢাকা ম্যাগাজিন

 

comments




Leave a Reply

Your email address will not be published.