Search

দুর্নীতির ফলে পারিবারিক যে পরিবর্তন ঘটে

দুর্তীনিবাজ সরকারী চাকরীজীবি গনি।

দুর্নীতির ফলে পারিবারিক যে পরিবর্তন ঘটে

দুর্নীতির ফলে পারিবারিক যে পরিবর্তন ঘটে

আপনাদের মনে আছে গত তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সময় গেফতার হওয়া ওসমান গনির কথা ? যার টাকা রাখার জায়গা ছিলনা। বালিসের মধ্যে টাকা, বাতরুমের ফ্লাসের মধ্যে টাকা, তোষকের মধ্যে টাকা। সেই বনের রাজা গনি কিন্তু একদিনেই গনি হয়নি। তাকে ধীরে ধীরে ডিগ্রি পাশ করতে হয়েছে তার মায়ের অন্যের বাড়িতে লেবার দেয়া টাকায়। একদিন ঢাকায় তিনি একাধিক বাড়ির মালিক। তার পরিবারে তার মায়ের থাকার জায়গাটা কোন ভাবেই হয়নি। গায়ের একটা মহিলার জন্য কেমন করে জায়গা দেবে? তার বাড়িতে কত লোক আসবে। সবাই উচ্চ ঘরের। দরকার নেই, মা ওখানেই থাকুক।

মাকে ফোন করা হয়না গনির। তার মা ফোন করলে “হেলো মা আমিতো খুব ব্যাস্ত পরে কথা বলব, আর কিছু কি লাগবে তোমার ? এখন রাখি” । মা যে কেন ফোন করল সে কথা বলতেই পারলনা। আর পরে কথা বলে আর পরে কখনো এখন হয়না। প্রতি মাসে ২ হাজার টাকা পাঠায়ে দেন  গনি মিয়া। এটা হলো তাকে জস্ম দেয়ার খরচ সম্ভবত। গত ১০ বছরেও মায়ের কাছে যায়নি। মা এসেছে ছেলেকে দেখার টানে কিন্তু কাঙ্খিত সম্মান পায়নি, চলে গেছে এই পরিবেশে বদ্ধ লাগছে বলে।

 

অথচ এই গনিই একদিন স্কুলে শেষে ফিরে বলেছে “আমি একদিন চাকরী করব আর সেই দিন তোমার আর এত পরিশ্রম করতে হবেনা, তুমি শুধু আরাম করবে”। সে কথা ভুলেই গেছে। ৫৪ শত টাকা স্কেলে চাকুরীতে ঘুকে আজ তার এত কিছু। সব চেন্জ । বনের গাছ তার নিজের বাগানের মত। হরিন তার পোষা ছাগলের মত। যখন ইচ্ছা বিক্রি করে দিচ্ছে। এর ভাগ যে কতটাকা কতজায়গায় দিতে হয়ে।

 

মা আর মা নেই। পরিচিতা মহিলা হয়ে গেছে। এতকিছুর পরেও ফকরুদ্দিনের সময় যখন গনি গ্র্রেফতার হয় তখন প্রথম আলোর প্রতিনিধিকে তার মা বলেছে তার খোকা এমন না। বৃদ্ধ মা ছুটে গিয়েছে জেল গেটে দেখতে। অনেক লম্বা সময় অপেক্ষা করে নিজ সন্তানের মুখটা দেখে কেঁদে ভিজিয়েছেন শাড়ির আচল।

 

যদি গনি কামলা হত::

সারা ‍দিন কাজ শেষে দুই কেজি চাল, সন্তানের জন্য লজেন্স আর মায়ের জন্য বাতের ব্যাথার বড়ি। খাওয়ার সময় মাকে সঙ্গে নিয়ে দুমুঠো ডাল ভাত বা লাউ পাতা ভর্তা। তারপর মায়ের সাথে কথা বলে শান্তির ঘুম। ঘুমোতে গিয়ে বউকে মিথ্যা স্বপ্ন দেখানো যে সামনে ধানের সময় তোমার কানের ‍দুল কিনে দিব।

কোন গনি ভাল ? উত্তর : অশিক্ষিত গনি। মায়ের আচরন একই ।

Read it খারাপ পুলিশের হাত থেকে রক্ষা পাওয়ার চরম ঔষুধ ! কাজ হবেই

আজকাল দেখবেন অনেক বাবা মা তাদের অনেক কষ্ট করে সন্তানকে মানুষ করেছেন। তারা এখন চাকুরী করে । কিন্তু তারা আর সেই আগের মত আর নেই। কাজের চাপে মায়ের খোজ নেয়া হয়না। মায়ের চেয়ে শাশুড়ীর খোজ নেয় বেশি। ভাইয়ের চেয়ে শালা বাবু, বোনের চেয়ে শালিকাই আপন।

 

ভাইদের সাথে সম্পর্কের অবনতি সবচেয়ে বেশি। তারা আর ভাই নেই তারা এখন একই সম্পত্তির ভাগিদার এবং অসহযোগি (গনিরা এভাবেই ভাবে)। ভাবছেন সবাইতো সম্মান করে এলাকার। ভুল ভাবছেন। সবাই জানে আঙ্গুল ফুলে কলা গাছ হওয়ার মানেটা কি? মসজিদের ঈমামের সাথে কথা বলতে পারেননা কিন্তু অন্য অনেক তোয়াজ কারীর সাথে ভাল সম্পর্ক্। মৃত্যুর পর শেষ কাজটা উনিই করেন তোয়াজ কারী নয়।

 

তাহলে শিক্ষা আমাদের কি করল? আমাদেরকে কি নষ্ট করে ফেলল না ? ঘৃণা করি এ সমস্ত শিক্ষাকে। I Hate this Fucking Education sYstem.

 

তবে যারা এগুলো করছে তাদের বলি — মনে করো এগুলো কেই বুঝতে পারছেনা?  তোমার ৬০ বছরের বাবা মায়ের যে অবমূল্যায়ন তোমরা করছ। তার ফল তুমি পাবেনা ? তোমার বয়স আজ মাত্র ৩৫. তোমার ছেলে তোমার চেয়ে বেশি বিদ্যা লাভ করবে। সেও একদিন চাকুরী করবে। আর সেদিন তোমার বয়স হবে ৬০। তোমার জায়গা কি হবে সে বাসায় ?

 

(দুর্নীতি মুক্ত পিওর থাকুন, মায়ের কোলেই থাকবেন অন্যথায় ঐ টাকার ভিটামিন দুর্নীতিবাজ গনির মতই করে তুলবে, আপনি টেরও পাবেননা। একটু চিন্তা করুন দেখুন কত গনি আপনার আশেপাশেই রয়েছে। এখন যদি আপনার বয়স ৩০ হয় তাহলে ৪৫ খুব বেশি দুরে নয় যেদিন আপনার গায়ের চামড়া ঢিল হওয়া শুরু করবে) ………………..

ভাল থাকবেন এই কামনায় রবিউল ইসলাম সোহেল

Read it ব্যাগে কনডম রাখার পরামর্শ – টয়া

 

comments